১৭ কোট টাকা রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগে দুই আমদানিকারক কারাগারেআবারও ভোজ্যতেলের ভ্যাট ১৫ শতাংশপ্রত্যক্ষ কর বাড়ানোর সুপারিশ মেট্রো চেম্বারেরউচ্চ মূল্যস্ফীতির কারণে বৈশ্বিক মন্দার আশঙ্কা উৎসে কর কর্তন: ব্যাখ্যা চেয়ে এনবিআরকে তিন ব্যাংকের চিঠি
No icon

বড় অঙ্কের ভ্যাট দেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর অ্যাক্সেস চায় এনবিআর

রাজস্ব সংগ্রহে স্বচ্ছতা আনতে বড় অঙ্কের ভ্যাট দেওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর অ্যাকাউন্টিং সফটওয়্যারে সার্বক্ষণিক প্রবেশাধিকার চেয়েছে ন্যাশনাল বোর্ড অব রেভিনিউ (এনবিআর)।এ লক্ষ্যে এনবিআরের আওতাধীন লার্জ ট্যাক্সপেয়ারর্স ইউনিট (এলটিউ) ১১০টি প্রতিষ্ঠানের কাছে রিড-অনলি আইডি ও পাসওয়ার্ড চেয়েছে। প্রতিষ্ঠানের সম্মিলিত ভ্যাট ৫০ হাজার কোটি টাকার বেশি।আগস্টের শুরুতে জারি করা আদেশে প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছে এ তথ্য চেয়েছে। রাজস্ব বোর্ড সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। রাজস্ব বোর্ড সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, প্রতিষ্ঠানগুলোর হিসাবপত্রে অনিয়ম থামাতে ও স্বচ্ছতা নিশ্চিত করার অংশ হিসেবে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।এর আগে ২০১৯ সালে রাজস্ব বোর্ডের দেওয়া একটি আদেশ বলা হয়, যেসব প্রতিষ্ঠানের বার্ষিক টার্নওভার ৫ কোটি টাকার বেশি, তাদের এনবিআর নির্ধারিত স্পেসিফিকেশনের সফটওয়্যার ব্যবহার করতে হবে।

কোনো প্রতিষ্ঠান এ আদেশ অমান্য করলে নতুন ভ্যাট আইনের ৮৫ ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে আদেশে বলা হয়। যদিও বড় কোম্পানির বেশিরভাগই মানেনি এই আদেশ তবুও দুই বছরেও কোনো প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নজীর নেই।জানা গেছে, ভ্যাট সফটওয়্যার বাধ্যতামূলক। স্বনামধন্য এসব প্রতিষ্ঠানের বেশিরভাগই সফটওয়্যার ক্রয় করেছে, কিন্তু ব্যবহার করে না। আবার কিছু প্রতিষ্ঠান নিজস্ব সফটওয়্যার ব্যবহার করছে, তবে এলটিইউকে প্রবেশাধিকার দেয় না।