করমুক্ত আয়ের সীমা বাড়ানো উচিত ছিলকর-ভ্যাটের চাপ আরও বাড়বেবাজেটে নিত্যপ্রয়োজনীয় ৩০ পণ্যে কমছে করভোগ্য পণ্যে শুল্ক কমানোর পরামর্শনতুন করের বোঝা না চাপানোর অনুরোধ ডিএসই’র
No icon

ভ্যাট ও আয়কর সনদ জুয়েলারি শো-রুমে প্রদর্শন করুন : বাজুস

আইন মেনে ভ্যাট সনদ ও আয়কর রিটার্ন দাখিলের প্রমাণপত্র সারাদেশের সকল জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানে দর্শনীয় স্থানে প্রদর্শনের জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশন (বাজুস)।শনিবার বাজুস এক নোটিশের মাধ্যমে জুয়েলারি ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে অনুরোধ জানিয়ে বলেছে, জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী সারাদেশের সকল জুয়েলারি প্রতিষ্ঠানে ব্যবসা শনাক্তকরণ নম্বর বা বিআইএন প্রতিষ্ঠানের দৃষ্টিগোচর স্থানে প্রদর্শন বাধ্যতামূলক। এই নির্দেশনা অমান্যকারীর বিরুদ্ধে আইনে শাস্তির বিধিবিধান রয়েছে।এছাড়া আয়কর আইন ২০২৩ এর ২৬৫ ধারায় রিটার্ন দাখিলের প্রমাণ প্রদর্শন করার বিধান এবং উক্ত বিধান পরিপালনের ব্যর্থতায় নিম্নরূপ জরিমানার বিধান সংযোজন করা হয়েছে: ২৬৫ (১) এই আইনের অধীন রিটার্ন দাখিলের বাধ্যবাধকতা রহিয়াছে এইরূপ করদাতা যাহারা ব্যবসা হইতে আয় রহিয়াছে তিনি রিটার্ন দাখিলের প্রমাণ তাহার ব্যবসার স্থানে সহজে দৃষ্টিগোচর হয় এইরূপ কোনো স্থানে প্রদর্শন করিবেন। ২৬৫ (২) যেইক্ষেত্রে কোনো করদাতা উপ-ধারা (১) এর বিধান পরিপালনে ব্যর্থ হন সেইক্ষেত্রে তিনি উপ কর কমিশনার অন্যূন ৫ (পাঁচ) হাজার টাকা এবং অনধিক ২০ (বিশ) হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা আরোপ করিতে পারিবেন। এই অবস্থায় সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী বিআইএন ও রিটার্ন দাখিলের প্রমাণ ব্যবসাস্থলে দৃষ্টিগোচর স্থানে প্রদর্শনের জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে।